সীতাকুন্ড সমিতি চট্টগ্রামের মত বিনিময় সভা

0
54

নিজস্ব প্রতিনিধি সীতাকুন্ড :  সীতাকুন্ডের সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও মানবিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সাথে সীতাকুন্ডের উন্নয়ন সংক্রান্ত এক মত বিনিময় সভা করেছে চট্টগ্রামস্থ সীতাকু- সমিতি। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ সীতাকু-ের গৌরব ফেনী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ড. ফসিউল আলম।
এ উপলক্ষে টুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি মুসলিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সীতাকু- সমিতির সভাপতি গিয়াস উদ্দিনের সঞ্চালনায় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ইমতিয়াজ ইকরাম, সাবেক উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোস্তাফা কামাল চৌধুুরী, মডেল থানার ওসি দেলোয়ার হোসেন,  বিশিষ্ট শিল্পপতি মো. ইমরান, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আজিজুল হক, সীতাকু- সমিতি‘র নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন মানিক, ব্যাংকার খোরশেদ আলম, থানার এসআই জাহেদ হোসেন,  কবি শুক্কুর চৌধুরী, শৈলী‘র নির্বাহী মো. নাছির উদ্দিন অনিক, কাকলী‘র সাধারণ সম্পাদক এমওএইচ কাইয়ুম, খেলাঘর‘র সভাপতি তপন চক্রবর্তী, বিবর্তন‘র  সভাপতি আলী আকবর জাসেদ, পৌর সদর ব্যবসায়ী‘র সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন, সাংবাদিক কাইয়ুম চৌধুরী, জাহাঙ্গীর আলম, নুরুল কবীর দুলাল, নাহিদ চৌ: কামরুল আলম প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, চট্টগ্রাম বন্দরের প্রবেশদ্বার সীতাকু- বাংলাদেশের দ্বিতীয় শিল্পাঞ্চল হিসাবে সমাদৃত। এছাড়াও এখানে রয়েছে হাজার কোটি টাকার রাজস্বের যোগানদাতা এশিয়ার বৃহত্তম জাহাজ ভাঙ্গা শিল্প। পর্যটনের দিক দিয়েও কক্সবাজারের পরে রয়েছে সীতাকু-ের স্থান। এতসব বৈশিষ্ট সমৃদ্ধ অত্র এলাকার অবকাঠামো উন্নয়নে রয়েছে পশ্চাৎপদতা। সীতাকু-ে বড় বড় শিল্প মালিকদের শিল্পের স্থাপনা থাকলেও সেখানে নেই এলাকার বেকার যুবকদের কর্মের সংস্থান। অন্যদিকে চন্দ্রনাথ পাহাড়, ইকো পার্ক,  ভাটিয়ারী লেক, বাঁশবাড়িয়া ও গুলিয়াখালী বিচে প্রতিদিন হাজার হাজার পর্যটকের আনাগোনা থাকলেও সরকারিভাবে এইসব স্থানগুলির সুরক্ষা ও উন্নয়নে কোন নজরদারি নেই।
সভায় সর্বশেষে সীতাকু-ের অবকাঠামো উন্নয়নে ১০ দফা দাবী সম্বলিত একটি প্রস্তাবনা পেশ করা হয় এবং এই প্রস্তাবনা বাস্তবায়নে দলমত নির্বিশেষে একটি উপ-কমিটি করা হয় যাতে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দদেরকে  সদস্য করা হয়।