সীতাকুণ্ডে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব আমিনুল ইসলাম

0
8

গিরি সৈকত ডেস্ক ঃ

 

“জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশ স্বাধীন করার পরপরই কারিগরি শিক্ষার উপর জোর দেন। তিনি ছাত্রদের উদ্দেশ্যে বলেছিলেন সবাইকে গ্র্যাজুয়েড-মাষ্টার্স হতে হবে না। কিন্তু কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। এখন তার সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাও কারিগরি শিক্ষার উপর জোর দিয়েছেন। যেন তার পিতার স্বপ্ন পূরণ করতেই দিনরাত কাজ করছেন তিনি”। কথাগুলো বললেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব আমিনুল ইসলাম, তিনি সোমবার বিকালে সীতাকুণ্ড টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজে আয়োজিত বই বিতরণ ও অবিভাবক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিল্টন রায়ের সভাপতিত্বে ও সহকারী শিক্ষা অফিসার মুনা বড়ুয়ার সঞ্চালনায়

এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের প্রকল্প পরিচালক যুগ্ন সচিব ড. মোঃ সিরাজুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আ.স.ম জামশেদ খোন্দকার ও সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাবের সভাপতি সৌমিত্র চক্রবর্তী। এছাড়া বক্তব্য রাখেন পৌর কাউন্সিলর জুলফিকার আলী মাসুদ শামীম, টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ওমর ফারুক, শিক্ষার্থী, অবিভাবক প্রতিনিধিরাও বক্তব্য রাখেন। শেষে সকল শিক্ষার্থীর হাতে বিনামূল্যে বই তুলে দেয়া হয়।

বক্তারা বলেন, শেখ হাসিনা যখন ২০০৮ সালে প্রধানমন্ত্রী হন তখন মাত্র ১শতাংশ মানুষ কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত ছিলো। আর এখন তা ১৮ শতাংশে এসে দাড়িয়েছে। উন্নত দেশে সকল ছাত্রকে কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত করা হচ্ছে। সেদিন দূরে নয় যেদিন আমাদের দেশেরও ভবিষ্যত প্রজম্ম শতভাগ কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত হবে।