সীতাকুণ্ডে গায়ের ভাষা মায়ের ভাষা পাঠ উম্মোচন অনুষ্টানে- গুনী ব্যক্তিদের মিলন মেলা।

0
85

গিরি-সৈকত ডেস্ক :

সীতাকুণ্ডে প্রবীণ শিক্ষাবিদ নজির আহমদ এর লোক সাহিত্য ও গবেষণা গ্রন্থ ’গায়ের ভাষা মায়ের ভাষা’ এর পাঠ উম্মোচন অনুষ্টান শিক্ষা, সমাজসেবা, সাহিত্য ও রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গের মিলন মেলায় পরিনত হয়েছে। মঙ্গলবার বিকাল ৪টায় সীতাকু- জেলা পরিষদ পাবলিক লাইব্রেরীতে প্রগতিশীল লেখক ফোরামের  আয়োজনে এই অনুষ্টান অনুষ্টিত হয়।

গল্পাকার দেবাশীষ ভট্টাচায্যর সভাপতিত্বে ও তরুণ লেখক শিহাব উদ্দিন ও মুসলিম উদ্দিন রিপন এর পরিচালনায় পাঠ উম্মোচন অনুষ্টানে লেখক ও তাঁর সদ্য প্রকাশিত বই নিয়ে আলোচনা করেন ফেনী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট ও বিজনেস স্টাডি বিভাগের অধ্যাপক ড. ফসিউল আলম, বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সহ-সভাপতি আহমদ মুজতাহিদ, শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের যুগ্ম সচিব আহমদ শামীম আল্ রাজি, সীতাকুণ্ড বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যাপক মোঃ আলী, ইস্পাহানী স্কুল এন্ড কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল আহমদ শাহীন আল্ রাজি, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ সদস্য আ,ন,ম দিলশাদ, কালের কণ্ঠ চট্টগ্রাম ব্যুরো চীপ মোস্তাফা নঈম, রাজনীতিবিদ মোস্তাফা কামাল চৌধুরী, সন্তোষ কুমার, বিস্ফোরক অধিদপ্তরের প্রধান কর্মকর্তা সামছুল আলম, সীতাকুণ্ড সরকারী উর্চ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান, প্রকৌশলী লাবলু, ডাঃ মাসুদ পারভেজ, সীতাকু- সমিতি চট্টগ্রাম সভাপতি গিয়াস উদ্দিন, সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন মানিক, লাযন কাজি আলী আকবর জাসেদ,  সাংবাদিক মোঃ ইউছুফ, জাহাঙ্গীর আলম, প্রধান শিক্ষক আবুল কাশেম, রূপন চন্দ্র চৌঃ, প্রবীর কুমার চৌঃ,  সাঈদ মিয়া,  লেখক আ,ফ,ম মফিজুর রহমান, মোঃ শোয়েব, খোরশেদ আলম, শুক্কুর চৌধুরী, মোঃ জামশেদ, আলী আদনান, মোঃ বেলাল, লিটন সেন প্রমুখ।

ahamed mustahid

অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক  ড. ফছিউল আলম বলেন, আমার স্যারের অনুষ্টানে আসতে পেরে স্যাারের পাশে বসতে পেরে আমি আনন্দিত। স্যারের লিখা ’গায়ের ভাষা মায়ের ভাষা’  রুচির দিক দিয়ে ৩৩২ পৃষ্টার এই বইটি চমৎকার নৈপূন্যের স্বাক্ষর রেখেছে। তিনি লেখককে এই বিষয়টির উপর থিসিস লিখে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের কোন শিক্ষককের কাছে জমা দেওয়ার আহবান জানান।

বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সহ-সভাপতি আহমদ মুজতাহিদ বলেন, আমরা নিরন্তর সত্যের সন্ধানে আছি, এটি একটি লোক সাহিত্য ও গবেষনাধর্মী গন্থ বিধায়  বাংলা একাডেমীর রেফারেন্স বই হিসেবে কাজে লাগবে।

শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের যুগ্ম সচিব লেখকের পুত্র আহমদ শামীম আল্ রাজি বলেন, আমাদের পরিবারের মা-বাবা  ভাই-বোন সবাই শিক্ষক, এই রকম পরিবারে জম্মগ্রহণ করে আমি গর্বিত। সীতাকুণ্ডের শিক্ষা বিস্তারে আমি সহযোগীতা করে যাব।

লেখক শিক্ষাবিদ নজির আহমেদ বলেন, এটি আমার লেখা ৭ম বই, এর আগে আমার প্রাণ প্রিয় ছাত্ররা আমার বইয়ের প্রকাশনা অনুষ্টান করতে চেয়েছিল আমি রাজি না থাকায় হয়নি। এবারে ঈদের আগেরদিন এ ব্যাপারে আমাকে খুব বেশী জোর করায় আমি না করতে পারিনি। তিনি কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, ৪০ বছরের শিক্ষকতা জীবনে সমাজকে কি দিতে পেরেছি তা জানিনা। দল, মত নির্বিশেষে সমাজ হৈতেষী, গুণী ব্যক্তিদের  উপস্থিতি আমার দীর্ঘ ৪০ বছরের শিক্ষাকতা জীবনের স্বার্থকতা বলে আমি মনে করি।

nazir ahamed

প্রগতিশীল লেখক ফোরামের নেতৃবৃন্দরা জানান, প্রবীণ শিক্ষাবিদ নজির আহমদ প্রচারবিমূখ একজন ব্যক্তি।  আমরা কাউকে ব্যক্তিগতভাবে আমন্ত্রণ জানাইনি, শুধু ফেইসবুকে স্টাটার্স দিয়েছিলাম অনুষ্টানের। কোন অনুষ্টানে যাদেরকে আমরা এক মাস আগে দাওয়াত দিয়ে আনতে পারতাম না, আজ তারা নজির স্যারের অনুষ্টান শুনে কোন প্রকারের আমন্ত্রণ পত্র ছাড়া লোকমুখে খবর পেয়ে ছুটে এসেছেন। আমরা সকলের কাছে কৃতজ্ঞা প্রকাশ করছি।