প্রতিভা সংগীত একাডেমী‘র শুভ উদ্বোধনে নাচ গানের জমকালো অনুষ্টান

0
105

মো. নাছির উদ্দিন অনিক  :

একের পর এক ক্ষুদে হতে প্রতিভাময়ী শিল্পীরা পরিবেশন করে যাচ্ছে নাচ আর গান, উপভোগ করছে মঞ্চ সীমানা অতিক্রম করে হাজার হাজার দর্শক। এটি সীতাকু-ের প্রতিভা সংগীত একাডেমীর উদ্বোধনী অনুষ্টানের চিত্র। শুক্রবার সন্ধায় ঐতিহ্যবাহী ভ্রাতৃসংঘ চত্বরে সংগীত নৃত্য ও আলোচনা সভার মাধ্যমে এর যাত্রা শুরু হয়। সীতাকু- উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিল্টন রায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এর শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

এই উপলক্ষে দুই পর্বে বিভক্ত অনুষ্ঠানের মধ্যে প্রথম পর্বে ভ্রাতৃসংঘের সভাপতি অধ্যাপক নরুল গণি‘র চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রূপন চন্দ্র দে‘র সঞ্চালনায় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন সংঘের সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ সুণীল বন্ধু নাথ, বিশিষ্ট সমাজসেবক ও সাবেক উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মোস্তাফা কামাল চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ার লাভলু, যুবউন্নয়ন কর্মকর্তা শাহ আলম, সংঘ সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আলম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক লিটন সেন, মুকুল সংগীত নিকেতনের পরিচালক অরিন্দম চক্রবর্তী, পৌর ব্যবসায়ী কমিটির সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন,  প্রতিভার পরিচালক শিমুল দাস প্রমুখ।

????????????????????????????????????
ছবি: প্রতিভা সংগীত একাডেমীর শুভ উদ্বোধনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিল্টন রায়।

বক্তারা বলেন, শিশুদেরকে লেখাপড়ার পাশাপাশি সু-নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হলে তাদেরকে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে প্রবেশ করাতে হবে। এই কাজটি করতে হবে পরিবারে পিতা-মাতা, ভাই-বোন ও বিদ্যালয়ে শিক্ষকবৃন্দরা। সাংস্কৃতিক র্চ্চার মধ্য দিয়ে শিশুর সুকুমার বৃত্তি ও মানবিক গুনাবলীর বিকাশ ঘটাতে পারে। সাংস্কৃতিক র্চ্চা ও শিক্ষা তথা গান, নৃত্য, যন্ত্রসংগীত শিখার জন্য সাংস্কৃতিক শিক্ষা প্রতিষ্টানের প্রয়োজন রয়েছে। সীতাকু-ে ভ্রাতৃসংঘ প্রতিভা সংগীত একাডেমীকে তাদের র্চ্চার স্থান করে দেওয়ার উদ্যোগ খুবই প্রসংশনীয়।

দ্বিতীয় পর্বে শামীমা আক্তার লাভলী ও মনিষা ভট্টাচায্য‘র সঞ্চালনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত ও নৃত্য পরিবেশনা করেন স্থানীয় ও চট্টগ্রাম বেতার, টেলিভিশনের এক ঝাক শিল্পী। হাজার হাজার দর্শকশ্রুতার উপস্থিতে মধ্যরাত পর্যন্ত গান আর নৃত্য পরিবেশনা অনেক দিন পর পৌর সদরের সংগীত প্রেমীদের মনের খোরাক মেটাতে পেরেছেন বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন ।